যুদ্ধ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক নেতাদের পরোক্ষে খোঁচা, সলমনের পাশে দাঁড়ালেন কবীর খান

By: web desk, abp ananda | Last Updated: Monday, 19 June 2017 3:51 PM
যুদ্ধ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক নেতাদের পরোক্ষে খোঁচা, সলমনের পাশে দাঁড়ালেন কবীর খান

মুম্বই:  ‘টিউবলাইট’-এর প্রচারে গিয়ে সম্প্রতি যুদ্ধ প্রসঙ্গে রাজনৈতিক নেতাদের পরোক্ষে খোঁচা দেন অভিনেতা সলমন খান। তিনি বলেন এইমুহূর্তে ভারত-পাকিস্তান দুদেশের মধ্যে শান্তি কায়েম হওয়া উচিত্। কারণ লড়াইয়ে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্থ হয় দুদেশের সেনা জওয়ানরা। জওয়ানদের পরিবারের সদস্যরাই হারান তাঁদের প্রিয়জনদের। তারপর তিনি বলেন যাঁরা এই যুদ্ধের সিদ্ধান্ত নেন, তাঁদের পাঠানো উচিত্ ময়দানে। সেখানে গিয়েই হাত-পা কাঁপতে শুরু করবে তাঁদের। পরেরদিনই আলোচনার টেবিলে বসবেন দুদেশের প্রতিনিধিরা।

সলমনের এই মন্তব্যের পর প্রকাশ্যে তাঁকে সমর্থন জানান কংগ্রেস-বিজেপির বহু নেতা-নেত্রী। কিন্তু সমালোচনাও শুরু হয় বিভিন্ন মহলে। তার মধ্যেই সলমনের সমর্থনে সওয়াল করলেন তাঁর বলিউডের অপর এক সদস্য চলচ্চিত্র পরিচালক কবীর খান।

পরিচালকের মতে, এই মন্তব্যের মধ্যে কোনও ভুলই নেই। বরং যুদ্ধ হলে দেশের সম্পদ, অর্থ, সময় এবং মহা মূল্যবান মানুষের জীবন নষ্ট হয়। তারপরই তিনি বলেন, কেউ যদিও বলে, যুদ্ধে যাওয়াটা বুদ্ধিমানের, তাহলে সে আসলে বোকা।

তবে সকলে সলমনের মতের সঙ্গে যে সহমত হবেন, এমনটা মোটেই মনে করেন না কবীর। কিন্তু তার বদলা নিতে যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলড হতে হচ্ছে অভিনেতাকে, সেটা মোটেই গ্রহণযোগ্য নয়।

সলমনের আসন্ন ছবি ‘টিউবলাইট’ ১৯৬২ সালের ভারত-চিন যুদ্ধের পটভূমিতে তৈরি হয়েছে। ছবিতে সলমনের ভাই সোহেল খান একজন সেনা জওয়ানের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। এক জওয়ান যুদ্ধক্ষেত্রে গেলে, তাঁদের পরিবারের সদস্যদের কীরকম মনের অবস্থা হয় সেটাও দেখানো হয়েছে এই ছবিতে।

First Published: Monday, 19 June 2017 3:47 PM