প্রেমিকার অসংখ্য অ্যাফেয়ার চলছে, সন্দেহে খুন করল দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র

By: ABP Ananda, Web desk | Last Updated: Thursday, 14 September 2017 8:42 AM
প্রেমিকার অসংখ্য অ্যাফেয়ার চলছে, সন্দেহে খুন করল দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র

হায়দরাবাদ: সমবয়সি বান্ধবীকে খুনের অভিযোগে গ্রেফতার হল হায়দরাবাদের এক ১৭ বছরের পড়ুয়া।

মৃত মেয়েটির নাম চাঁদনি জৈন। মঙ্গলবার সকালে আমিনপুরে এক টিলার ওপর তার দেহ উদ্ধার হয়। ৪ দিন ধরে নিখোঁজ ছিল সে। তার দেহ উদ্ধারের পর খুনের অভিযোগে ধৃত ছাত্র তার বাড়ি গিয়ে বাবা মাকে সান্ত্বনাও দিয়ে এসেছিল।

কোমপল্লির একটি স্কুলে ২০১৫ সাল পর্যন্ত একসঙ্গে পড়াশোনা করে তারা। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্ত ছেলেটির সঙ্গে চাঁদনির সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ছেলেটির কিছুদিন ধরে মনে হচ্ছিস, ফেসবুক আর স্ন্যাপচ্যাটের মাধ্যমে তার বান্ধবী আরও বহু ছেলের সঙ্গে বন্ধুত্ব পাতিয়েছে।

তাই মেয়েটির সঙ্গে সে সম্পর্ক ছেদেরও চেষ্টা করে কিন্তু ১৭ বছরের কিশোরী তাকে বিয়ে করার জন্য চাপ দেয় বলে অভিযোগ। ৯ তারিখ এ নিয়ে তাদের মধ্যে তুমুল ঝগড়াঝাঁটি হয়। তখনই দ্বাদশ শ্রেণির ওই ছাত্র ঠিক করে, বরাবরের জন্য মেয়েটিকে সরিয়ে দিতে হবে।

সেদিনই সন্ধেয় সে তাকে অটেরিকশায় করে আমিনপুর পাহাড়ে নিয়ে যায়। সেখানেও বেধে যায় ঝগড়া, সেখান থেকে আত্মহত্যার হুমকি। অভিযোগ, রাগের মাথায় ছেলেটি মেয়েটির মুখে, গলায় ঘুষি মারে। তারপর গলা টিপে মেরে ফেলে। পাহাড়ের ওপর দেহটি টেনে নিয়ে গিয়ে ওপর থেকে ফেলে দেয়।

রাতে ওই ছাত্রী বাড়ি না ফেরায় তার বাবা মা পুলিশে খবর দেন। বন্ধুদের সঙ্গে কথা বলে ও ফোন কল রেকর্ড ঘেঁটে বয়ফ্রেন্ডের সন্ধান পায় পুলিশ। খোঁজ মেলে অটোরিকশা চালকেরও।

মঙ্গলবার ছেলেটি মৃত বান্ধবীর বাড়ি গিয়ে তার বাবা মাকে সান্ত্বনা দেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই খুনের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। মৃতের বাবার ধারণা, ছেলেটি একা এ কাজ করেনি, সঙ্গে আরও কেউ ছিল।

 

First Published: Thursday, 14 September 2017 8:42 AM