আমি ছিঁচকে চোর নই: পুলিশকে শশীকলা

By: ABP Ananda, Web desk | Last Updated: Friday, 17 February 2017 1:47 PM
আমি ছিঁচকে চোর নই: পুলিশকে শশীকলা

বেঙ্গালুরু: পুলিশের জিপে বসে জেলে ঢুকবেন না তিনি। বরং তার থেকে হেঁটে যাবেন। বেঙ্গালুরুর পারাপ্পানা অগ্রহারা কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে যাওয়ার সময় এভাবেই পুলিশের কথা মানতে আপত্তি জানালেন শশীকলা নটরাজন। তাঁর পরিষ্কার কথা, কয়েদের মধ্যে বসতে তাঁর আপত্তি নেই কিন্তু ছিঁচকে অপরাধীর মত খোলা জিপে বসে যাবেন না।

শশীকলা জানান, দূরত্ব যতই হোক, হাঁটতে অসুবিধে নেই তাঁর। পুলিশের কথা অগ্রাহ্য করে শেষমেষ হেঁটেই জেলে ঢোকেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, তাঁর শরীরী ভাষাতেই নাকি পরিষ্কার ছিল, তিনি অত্যন্ত ক্রুদ্ধ এবং হতাশ।

জানা যাচ্ছে, শেষ কয়েক বছর বিপুল বৈভবে জীবন কাটানো শশীকলা ভেবেছিলেন, আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিহীন সম্পত্তির মামলায় গতবার যখন তিনি জেলে যান, তখন যে ব্যবহার পেয়েছিলেন, এবারেও সেই ভিআইপি ট্রিটমেন্টই থাকবে তাঁর জন্য। হয়তো মনে ছিল না, তখন তাঁর সঙ্গে জেলে ছিলেন জয়ললিতা জয়ারাম, যিনি তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। শারীরিক সমস্যা থাকায় জয়াকে এ গ্রেড সুযোগসুবিধে দেওয়া হয়, তাঁর সঙ্গে থাকায় শশীকলাও পান সে সব সুবিধে। কিন্তু এবার পরিস্থিতি পুরোপুরি আলাদা কারণ ভিআইপি কয়েদি হিসেবে তাঁকে দেখতে জমা পড়া আবেদন আদালত খারিজ করে দিয়েছে।

জানা যাচ্ছে, শশীকলাকে বলা হয়েছে, তিনি যেহেতু মুখ্যমন্ত্রী নন, তাই কোনও আলাদা সুযোগসুবিধে তাঁকে দেওয়া হবে না। এই কথা নাকি তাঁর কাছে অপ্রত্যাশিত ছিল।

যে সেলে শশীকলাকে রাখা হয়েছে, তার বাথরুম অর্ধেকটা খোলা। রাতেও ভাল করে ঘুমোতে পারেননি তিনি। তাঁকে থাকতে হচ্ছে এই মামলায় আর এক কয়েদি, তাঁর বৌদি ইলাভারাসির সঙ্গে। তাঁর সঙ্গে মাঝে মধ্যে দুএকটা কথা ছাড়া শশীকলা নাকি মুখ বুজেই রয়েছেন। তামিলনাড়ুর কী পরিস্থিতি, তাও জানতে চাননি কারও কাছে।

তবে শারীরিক সমস্যার কারণে শশীকলাকে ছোট একটি খাটিয়া দেওয়া হয়েছে। পরার জন্য দেওয়া হয়েছে মহিলা কয়েদিদের সাদা শাড়ি। কিন্তু সঙ্গে ম্যাচিং সাদা ব্লাউজ না থাকায় তা পরেননি শশীকলা। এআইএডিএমকে-র অনেক নেতাকর্মীই তাঁর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছেন। কিন্তু তিনি কারও সঙ্গে কথা বলতে রাজি হননি।

First Published: Friday, 17 February 2017 1:47 PM

Related Stories

শোলেতে জয় কী করে মারা যায় জানেন? ঘরে টয়লেট ছিল না বলে
শোলেতে জয় কী করে মারা যায় জানেন? ঘরে টয়লেট ছিল না বলে

রাঁচি: অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। আপনি হয়তো জানেন না। কিন্তু রাঁচি নগর নিগম

জিপের সামনে কাশ্মীরী যুবককে বাঁধা মেজরকে পুরস্কৃত করল সেনা
জিপের সামনে কাশ্মীরী যুবককে বাঁধা মেজরকে পুরস্কৃত করল সেনা

নয়াদিল্লি: জিপের বনেটে এক পাথর ছোঁড়া বিক্ষোভকারীকে বেঁধে গোটা এলাকা

ম্যানচেস্টার বিস্ফোরণে শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর
ম্যানচেস্টার বিস্ফোরণে শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রীর

নয়াদিল্লি: ম্যানচেস্টার বিস্ফোরণের ঘটনায় শোকপ্রকাশ করলেন প্রধানমন্ত্রী

কুলভূষণ: আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের নির্দেশ না মানলে ফল ভুগতে হবে পাকিস্তানকে, হুঁশিয়ারি কংগ্রেসের
কুলভূষণ: আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের নির্দেশ না মানলে ফল ভুগতে হবে...

নয়াদিল্লি: কুলভূষণ যাদব মামলায় আন্তর্জাতিক ন্যায় আদালতের নির্দেশ না মানলে

ডিভোর্সে তিন তালাক নয়, পাত্রপাত্রীদের নিকাহ-র সময় বলতে নির্দেশ দেওয়া হবে কাজিদের, সুপ্রিম কোর্টে এআইএমপিএলবি
ডিভোর্সে তিন তালাক নয়, পাত্রপাত্রীদের নিকাহ-র সময় বলতে নির্দেশ...

নয়াদিল্লি: যে মুসলিমরা তিন তালাক দেবে, তাদের সামাজিক বয়কট করা হবে। মুসলিম

এবিপি নিউজ-লোকনীতি সিএসডিএস সমীক্ষা: উত্তর ভারতে এনডিএ-র ভোটের হার বাড়লেও কমতে পারে আসন সংখ্যা
এবিপি নিউজ-লোকনীতি সিএসডিএস সমীক্ষা: উত্তর ভারতে এনডিএ-র ভোটের হার...

নয়াদিল্লি: আগামী ২৬ তারিখ কেন্দ্রে তিন বছর পূর্ণ করছে মোদী সরকার। এই তিন

এবিপি নিউজ-লোকনীতি সিএসডিএস সমীক্ষা: এখনই ভোট হলে এরাজ্য সহ পূর্ব ভারতে এনডিএ-র জয়জয়কার
এবিপি নিউজ-লোকনীতি সিএসডিএস সমীক্ষা: এখনই ভোট হলে এরাজ্য সহ পূর্ব...

নয়াদিল্লি: আগামী ২৬ তারিখ কেন্দ্রে তিন বছর পূর্ণ করছে মোদী সরকার। এই তিন

আইএএস অফিসারের মৃত্যুতে খুনের মামলা দায়ের করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ
আইএএস অফিসারের মৃত্যুতে খুনের মামলা দায়ের করল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ

লখনউ: মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে দেখা করে কর্নাটক ক্যাডারের

অমানবিক! অ্যাম্বুলেন্স দিল না হাসপাতাল, স্ট্রেচারে স্ত্রীর মৃতদেহ নিয়ে গেলেন স্বামী
অমানবিক! অ্যাম্বুলেন্স দিল না হাসপাতাল, স্ট্রেচারে স্ত্রীর মৃতদেহ...

কৌসাম্বী:  ওড়িশায় দানা মাঝিকাণ্ড, গাড়ি না পেয়ে মায়ের দেহ ভেঙেচুরে নিয়ে

চিকিৎসার খরচ জোগাড়ে অক্ষম, অসুস্থ শিশুদের শ্বাসরোধ করে হত্যার পর বিষ খেলেন মহিলা
চিকিৎসার খরচ জোগাড়ে অক্ষম, অসুস্থ শিশুদের শ্বাসরোধ করে হত্যার পর...

কোটা: দীর্ঘদিন ধরে রোগে ভুগছিল তিন বছরের মেয়ে এবং দেড় বছরের ছেলে। তাদের

Recommended