ক্লাস কামাই, শাস্তি দিতে পড়ুয়াদের মুখ কয়লা দিয়ে কালো করে রাস্তায় হাঁটাল শিক্ষক

By: web desk, abp ananda | Last Updated: Tuesday, 12 September 2017 4:09 PM
ক্লাস কামাই, শাস্তি দিতে পড়ুয়াদের মুখ কয়লা দিয়ে কালো করে রাস্তায় হাঁটাল শিক্ষক

ফাইল চিত্র

ভোপাল:  মধ্যপ্রদেশের সিঙরাউলি জেলার এক সরকারি স্কুলে শিক্ষক, ক্লাস কামাইয়ের অপরাধে পাঁচ পড়ুয়াকে নির্মম শাস্তি দিলেন। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ক্লাস কামাই করায় পাঁচ পড়ুয়ার মুখ কয়লা দিয়ে কালো করে, তাদের গ্রামের রাস্তায় হাঁটালো শিক্ষক। পড়ুয়াদের অপরাধ, তারা দুদিন স্কুলে আসেনি।

ঘটনাটি ঘটে শিক্ষক দিবসের পরেরদিন, অর্থাত্ গত ৬ সেপ্টেম্বর। তবে সদ্য জানাজানি হয়েছে।

এরপরই ওই সরকারি স্কুলে গিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে আক্রান্ত পড়ুয়াদের অভিভাবকরা। দেওসর ব্লকের ওবারিতে সরকারি মিডল স্কুলের ঘটনা এটি। স্কুলের প্রিন্সিপ্যাল অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে এখনও কোনও পদক্ষেপ গ্রহণ না করায়, জেলা প্রশাসনের কাছে নালিশ জানিয়েছেন অভিভাবকরা।

অভিযোগপত্রে অভিভাবকরা রামদরশ প্রজাপতি নামের ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে পড়ুয়াদের মুখে কয়লা লেপে দেওয়ার অভিযোগ এনেছেন। শুধু তাই নয় পুরো গ্রামবাসীর সামনে তাদের হেনস্থা পর্যন্ত করা হয়েছে। যতক্ষণ পর্যন্ত পড়ুয়াদের বাবা-মা ঘটনাস্থলে আসেননি, ততক্ষণ পর্যন্ত এই হেনস্থার ঘটনা চলেছে। এই ধরনের ব্যবহার কেন তিনি করলেন, জানতে চাওয়ায়, সেই শিক্ষক আবার বলেছেন, তিনি শুধুমাত্র নির্দেশ পালন করেছিলেন।

এপ্রসঙ্গে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও, তাঁরা কোনও রকমের প্রতিক্রিয়া দিতে অস্বীকার করেন।

ভারতের স্কুলে দৈহিক শাস্তির ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও, এখনও পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে দেশের বিভিন্ন জায়গায় সেই শাস্তি চলছে রমরম করে। সম্প্রতিই হায়দরাবাদের এক স্কুলে একটি ১১ বছরের মেয়েকে শাস্তিসরূপ ছেলেদের ওয়াশরুমে পাঠানো হয়। আবার অগাস্টে বেসরকারি এক স্কুলে, এক পড়ুয়া রোল কলের সময় ছাত্র শুনতে না পাওয়ায়, তাকে ৪০ বার চড় মারে। তারপর তার মাথা বোর্ডের সঙ্গেও ঠুকে দেয়। এই ঘটনায় সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধেও অভিযোগ দায়ের করা হয়।

 

 

 

First Published: Tuesday, 12 September 2017 4:05 PM