শেষ হল সংসদের বাদল অধিবেশন

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Friday, 11 August 2017 4:50 PM
শেষ হল সংসদের বাদল অধিবেশন

নয়াদিল্লি: শেষ হল সংসদের বাদল অধিবেশন। এই অধিবেশনে রাজ্যসভার উল্লেখযোগ্য ঘটনা হল নতুন চেয়ারম্যান প্রাপ্তি। অন্যদিকে, ৬ কংগ্রেস সাংসদের সাসপেনসন ঘিরে তোলপাড় হয় লোকসভা।

দেশের সাংবিধানিক পদের দিক দিয়ে এবারের বাদল অধিবেশন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, এবার সংসদ দেখল নতুন রাষ্ট্রপতি ও উপ-রাষ্ট্রপতিকে।

দেশজুড়ে গো-হত্যা ও স্বঘোষিত গো-রক্ষকদের তাণ্ডব ঘিরে সদ্যসমাপ্ত অধিবেশনে উত্তাল ছিল সংসদের উভয় কক্ষই। শাসক ও বিরোধী শিবিরের মধ্যে প্রবল বাকবিতণ্ডা হয়। একইভাবে, শেষ দিকে রাহুল গাঁধীর গাড়ির ওপর হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুপক্ষই একে অপরকে টার্গেট করে।

লোকসভায় ব্যাঙ্কিং সংশোধনী বিল সমেত ১৪টি বিল পাশ করানো হয়েছে। পাশ হয়েছে কোম্পানি সংশোধনী অ্যাক্ট ২০১৬, নাবার্ড সংশোধনী অ্যাক্ট, ২০১৭। অন্যদিকে, কক্ষের মধ্যে অনভিপ্রেত ব্যবহারের জন্য অধীররঞ্জন চৌধুরী, গৌরব গগৈ, কে সুরেশ, রঞ্জীত রঞ্জন, সুস্মিতা দেব ও এম কে রাঘবনকে পাঁচদিনের সাসপেন্ড করেন স্পিকার।

লোকসভার স্পিকার সুমিত্রা মহাজন জানান, অধিবেশনের মোট সময়ের মধ্যে প্রায় ৩০ ঘণ্টার কাজ নষ্ট হয়েছে বিভিন্ন হই-হট্টগোলে। সাড়ে ১০ ঘণ্টার কাজ অতিরিক্ত করে সেই ক্ষতি কিছুটা কমানো হয়েছে। ৬৩ প্রশ্নের জবাব মৌখিক দেওয়া হয়েছে।

অন্যদিকে, অধিবেশনের শেষ দিনে কক্ষের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব নেন ভেঙ্কাইয়া নাইডু। বাদল অধিবেশনে সংসদের উচ্চকক্ষে ৯টি বিল পাশ হয়েছে।

চলতি অধিবেশনে দুই সদস্য—বিএসপির মায়াবতী, ও ভেঙ্কাইয়া নাইডু পদত্যাগ করেন। অন্যদিকে রাজ্যসভায় আসেন বনয় দীনু তেন্ডুলকর ও সাম্পাত্য উইকে। প্রয়াত হন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অনীল মাধব দাভে, গোবর্ধন রেড্ডি।

First Published: Friday, 11 August 2017 4:50 PM