শোপিয়ানে নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিতে খতম কম্যান্ডার গজনভি সহ তিন হিজবুল জঙ্গি, নিহত ২ জওয়ানও

By: ABP Ananda, Webdesk | Last Updated: Sunday, 13 August 2017 6:52 PM
শোপিয়ানে নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিতে খতম কম্যান্ডার গজনভি সহ তিন হিজবুল জঙ্গি, নিহত ২ জওয়ানও

শ্রীনগর: দক্ষিণ কাশ্মীরের শোপিয়ানে নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে গুলিযুদ্ধে খতম তিন হিজবুল মুজাহিদিন জঙ্গির মধ্যে রয়েছে সংগঠনের চিফ অপারেশনস কম্যান্ডার ইয়াসিন ইট্টু ওরফে গজনভি।

স্থানীয় পুলিশ থেকে গোপন সূত্রে খবর পেয়ে গতকাল রাতে শোপিয়ানের আবনিরা গ্রামে অভিযান চালায় জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ, সেনা ও সিআরপিএফ-কে নিয়ে তৈরি স্পেশাল অপারেশন্স গ্রুপ (এসওজি)।

জঙ্গিরা যে জায়গায় আত্মগোপন করেছিল, তা ঘিরে ফেলেন জওয়ানরা। বাহিনীকে দেখেই তাদের দিকে গুলি চালাতে শুরু করে জঙ্গিরা। এতে পাঁচ জওয়ান জখম হন। পরে, তাঁদের মধ্যে ২ জনের মৃত্যু হয় হাসপাতালে।

এর ফলে, বাহিনীকে ভোর হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়। যদিও, রাতভর বিক্ষিপ্ত গুলি বিনিময় হয় দুপক্ষের মধ্যে, কিন্তু, মূল হামলা হয় দিনের আলো ফোটার পর। পুরোদমে পাল্টা হামলা চালায় বাহিনীয তাতেই তিন জঙ্গির মৃত্যু হয়।

নিহত জঙ্গিরা হল— ইয়াসিন ইট্টু, প্রযুক্তি-দুরস্ত ইরফান, যে হিজবুলের অনলাইন প্রচারের দায়িত্বে ছিল এবং ইট্টুর ব্যক্তিগত নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা উমর।

গোয়েন্দারা জানান, মধ্য কাশ্মীরের বাডগাম জেলার বাসিন্দা ইট্টু—দীর্ঘদিন ধরেই হিজবুল মুজাহিদিনের সঙ্গে জড়িত। গত বছর বুরহান ওয়ানির মৃত্যুর পর থেকে উপত্যকায় অশান্তি ছড়ানোর নেপথ্যে ইট্টুর সক্রিয় ভূমিকা ছিল।

জানা গিয়েছে, ইট্টু ১৯৯৬ সালে হিজবুলে যোগ দেয়। ২০০৭ সালে সে একবার আত্মসমর্পণ করেছিল। পরে ২০১৪ সালে প্যারোলে মুক্তি পায়। সেই সময় সে আবার জঙ্গিগোষ্ঠীতে নাম লেখায়। এবার সে স্বঘোষিত অপারেশনস প্রধান হয়ে ওঠে।

গতকালের সংঘর্ষে প্রাণ হারিয়েছেন ২ সেনা জওয়ান। নিহতরা হলেন—সেপাই পি ইলিয়ারাজা এবং সেপাই গবাই সুমেধ ওয়ামান। আহত হন আরও এক ক্যাপ্টেন সহ তিনজন।

পাক সেনার যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন, মৃত ১ জওয়ান

জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে নিয়ন্ত্রণ রেখায় গতকাল দু দফায় যুদ্ধিবিরতি লঙ্ঘন করে গুলি চালায় পাকিস্তানের সেনা। এতে এক জওয়ান ও এম মহিলার মৃত্যু হয়েছে।

গতকাল বিকেল পাঁচটা নাগাদ ভারতীয় সেনা চৌকিগুলি লক্ষ্য করে বিনা প্ররোচনায় গুলি চালাতে শুরু করে পাক বাহিনী। পাল্টা জবাব দেয় ভারতীয় সেনাও।

প্রতিরক্ষামন্ত্রকের মুখপাত্র জানিয়েছেন, পাক বাহিনীর গুলিতে মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দা নায়েব সুবেদার জগরাম সিংহ তোমর (৪২) গুরুতর জখম হন। পরে তাঁর মৃত্যু হয়।

এর আগে গোললাদ কালরান গ্রাম লক্ষ্য করে পাক সেনার নির্বিচার গুলি বর্ষণে ৪০ বছরের এক মহিলার মৃত্যু হয়।

এদিকে, বান্দিপোরায় সেনা দুই-তিনজন জঙ্গিকে ঘিরে ফেলে। হাজিন এলাকায় তল্লাশির সময় জঙ্গিরা নিরাপত্তাবাহিনীর ওপর হামলা চালায় জঙ্গিরা। তাতে এক সেনা জওয়ান ও ২ পুলিশকর্মী জখম হন। নিরাপত্তা বাহিনী ওই জঙ্গিদের ঘিরে ফেলেছে বলে খবর পাওয়া গিয়েছে। আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের অবস্থা

First Published: Sunday, 13 August 2017 7:44 AM