সুনীল পাণ্ডের মৃত্যু-বিতর্ক: মেডিকার বিরুদ্ধে গঠিত ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি

By: Rajarshi Dutta Gupta & Arnab Mukherjee, ABP Ananda | Last Updated: Thursday, 16 March 2017 8:35 PM
সুনীল পাণ্ডের মৃত্যু-বিতর্ক: মেডিকার বিরুদ্ধে গঠিত ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি

কলকাতা: ডানকুনির সঞ্জয় রায়ের পর এবার পাটুলির সুনীল পাণ্ডের মৃত্যু-বিতর্কেও, পরিবারের আবেদনে সাড়া দিল রাজ্য সরকার। অ্যাপোলোর পর এবার মেডিকা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের ভূমিকা খতিয়ে দেখতে তৈরি হল তদন্ত কমিটি!
মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে স্বাস্থ্য দফতর যে তদন্ত কমিটি তৈরি করেছে তাতে রয়েছেন, কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের কার্ডিওলজির বিভাগীয় প্রধান প্লাবন মুখোপাধ্যায়। এসএসকেএমের অর্থোপেডিকের বিভাগীয় প্রধান আনন্দ কিশোর পাল এবং এসএসকেএমের মেডিসিন বিভাগের চিকিৎসক সৌমিত্র ঘোষ।
সুনীল পাণ্ডের চিকিৎসা সংক্রান্ত যাবতীয় অভিযোগ খতিয়ে দেখবে এই কমিটি। এদিন মৃতের স্ত্রী সুজাতা পাণ্ডে বলেন, মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ, পাশে থাকার জন্য। তদন্ত কমিটিকে জানাব গাফিলতি হয়েছে।
এই ঘটনার তদন্তে মেডিকার চিকিৎসক সুনীপ মুখোপাধ্যায়কে বৃহস্পতিবার জিজ্ঞাসাবাদ করে পূর্ব যাদবপুর থানা। হৃদরোগের চিকিৎসা করাতে যাওয়া রোগীর কেন পা বাদ দেওয়া হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে, ইতিমধ্যেই থানায় অভিযোগ জানিয়েছে সুনীলের পরিবার। সূত্রের খবর, একাধিক বিষয়ে ধন্দ তৈরি হওয়ায়, পায়ের কাটা অংশটি খতিয়ে দেখতে চান ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকরা।
কিন্তু মেডিকা জানিয়ে দেয়, তারা সেটি ‘ডিজপোস অফ’ হয়ে দিয়েছে। যারা এই কাজের দায়িত্বে ছিল, সেই সংস্থার সঙ্গেও যোগাযোগ করে পুলিশ। কিন্তু ওই সংস্থাও লিখিতভাবে জানিয়ে দেয় সুনীলের বাদ দেওয়া পা-টি আর নেই!
সুজাতার দাবি, মনে হচ্ছে, গণ্ডগোল আছে, সে কারণেই পা দেয়নি মেডিকা। যদিও মেডিকার দাবি, সব কিছু নিয়মমাফিক হয়েছে। গ্রুপের মেডিক্যাল ডিরেক্টর কর্নেল সৌমেন বসু বলেন, যেহেতু মেডিকো-লিগাল কেস নয়, পথ দুর্ঘটনা নয়। তাই পরিবারেকে দেখিয়ে কাটা পা-টা নিয়মমাফিক ডিসপোজ অফ করে দেওয়া হয়েছে।
পা কাটার পাশাপাশি, সুনীলের বুকের দাগ নিয়েও দানা বেঁধেছে রহস্য। কীভাবে এল ওই কাটা দাগ? কোন পরিস্থিতিতেই বা সুনীলের পা কেটে বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মেডিকার চিকিৎসকরা? গোটা বিষয়টাই খতিয়ে দেখবে স্বাস্থ্য দফতরের তদন্ত কমিটি। অন্যদিকে, মেডিকায় সুনীলের চিকিৎসা সংক্রান্ত সব নথি হাতে পেয়েছেন ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকরা। সব তথ্য যাচাই করে দেখছেন তাঁরা।

First Published: Thursday, 16 March 2017 8:35 PM