জিএসটি-র ফলে উপকরণের দাম বেড়েছে, দাবি, পুজোর আগে সমস্যায় মৃৎশিল্পীরা

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Wednesday, 2 August 2017 3:35 PM
জিএসটি-র ফলে উপকরণের দাম বেড়েছে, দাবি, পুজোর আগে সমস্যায় মৃৎশিল্পীরা

কলকাতা: দুর্গাপুজো আসতে দু মাসও বাকি নেই। কিন্তু কুমোরটুলির মৃৎশিল্পীদের মুখে হাসি নেই। কারণ, কেন্দ্রীয় সরকার যে পণ্য ও পরিষেবা কর চালু করেছে, সেটা এখনও বুঝেই উঠতে পারেননি অধিকাংশ শিল্পী। ক্রেতাদের অবস্থাও তথৈবচ। ঠাকুর তৈরির বিভিন্ন সামগ্রীর দাম বেড়ে গিয়েছে বলেই জানাচ্ছেন ব্যবসায়ীরা। ফলে পুজো কমিটিগুলির মতোই সমস্যায় শিল্পীরাও।

কুমোরটুলি মৃৎশিল্পী সংস্কৃতি সমিতির মুখপাত্র বাবু পাল জানিয়েছেন, ‘নতুন কর ব্যবস্থা এখনও স্পষ্ট নয়। জিএসটি চালু হওয়ার পর পরচুলা, কাজল, অ্যালুমিনিয়াম ও ইস্পাতের তৈরি অস্ত্রশস্ত্র, শাড়ির মতো সামগ্রীগুলির দাম বেড়ে গিয়েছে। এ বিষয়ে সবাই ধন্দে। ফলে এ বছর পুজো কমিটিগুলি ঠাকুরের বাজেট কমিয়ে দিয়েছে।’

কুমোরটুলির ঠাকুর শুধু কলকাতা বা বিভিন্ন জেলাই নয়, বিদেশেও যায়। এবারও বিদেশে যাচ্ছে এখানে তৈরি দেবীমূর্তি। কিন্তু জিএসটি-র ফলে বিদেশে মূর্তি পাঠানো নিয়েও সমস্যায় শিল্পীরা। বাবু বলেছেন, ‘আমরা উত্তর আমেরিকা, দক্ষিণ আমেরিকা ও ইউরোপে ফাইবারের প্রতিমা পাঠাই। কিন্তু জিএসটি চালু হওয়ার ফলে বিমানে বা জাহাজে করে বিদেশে প্রতিমা পাঠানোর খরচ অনেক বেড়ে গিয়েছে। ফলে আমরা সমস্যায় পড়ে গিয়েছি।’

স্থানীয় ব্যবসায়ী রঞ্জিৎ সরকার বলেছেন, এবার মাটি, বাঁশের দামও বেড়ে গিয়েছে। তার উপর জিএসটি-র ফলে অন্যান্য সামগ্রীরও দাম বেড়ে গিয়েছে। ফলে ব্যবসা মার খাবে বলে আশঙ্কা করছেন তাঁরা।

First Published: Wednesday, 2 August 2017 2:48 PM