ডায়েরির ছেঁড়া দুটি পাতাতেই লুকিয়ে দমদমে গৃহবধূর মৃত্যুরহস্য?

By: Abir Dutta, Samit Sengupta, ABP Ananda | Last Updated: Thursday, 10 August 2017 10:13 PM
ডায়েরির ছেঁড়া দুটি পাতাতেই লুকিয়ে দমদমে গৃহবধূর মৃত্যুরহস্য?

কলকাতা: বিয়ের ৬ মাসের মধ্যেই রহস্যমৃত্যু! শ্বশুরবাড়িতে উদ্ধার বধূর ঝুলন্ত দেহ। ডায়েরির ছেঁড়া পাতা ঘিরে ঘনীভূত রহস্য। বৃহস্পতিবারই শ্বশুরবাড়ি থেকে উদ্ধার হয়েছে শ্রাবন্তীর একটি ডায়েরি। পাতায় পাতায় লেখা নানা অনুভূতি, অভিজ্ঞতার কথা।

শ্রাবন্তীর বিয়ে হয়েছিল চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে। বিয়ের আগে ডায়েরির ৮ ফেব্রুয়ারির পাতায় লিখেছেন, ‘আমি বিশ্বাস করতে পারছি না। কিন্তু এটা সত্যি…. আমার জীবনে একটা সুন্দর পরিবর্তন আসতে চলেছে। কেউ আমাকে ভালবাসবে। ভালবাসায় পরিবর্তিত হবে আমার জীবন। যাঁদের জন্য এটা হবে সে ব্যক্তি এবং তাঁর পরিবারকে আমার ধন্যবাদ।’

বিয়ের আগে স্বামী ও শ্বশুরবাড়ির সদস্যদের সম্পর্কে এরকম কথা লিখলেও, শ্রাবন্তীর স্বপ্ন ভাঙতে সময় লাগেনি। অভিযোগ, জোর করে গর্ভপাত করানোর পাশাপাশি আরও পড়তে চাওয়ায় অত্যাচারের শিকার হয়ে হয় তাঁকে।

১৭ জুন শ্রাবন্তী লিখেছেন, ‘মেজবউ পড়াশোনা তুলে আমাকে কথা শুনিয়েছে। আমি, আমার পরিবার জানি, কীভাবে পড়াশোনা করেছি। বিশ্বদেব হয়তো বোঝে না আমার পরিস্থিতি।’ ওই ঘটনার কয়েকদিন পর ২২ জুনের পাতায় শ্রাবন্তী লিখেছেন, ‘আমি কী করে ওকে চিন্তামুক্ত করি? বাড়ির ছেলে যখন, বাড়ি নিয়েই তো বেশি ভাববে…এটা ঠিক। তাই বলে ওর ভাবনায় আমি কোথাও নেই!’

পরিবারের দাবি, অবহেলা সত্বেও নিজের শ্বশুরবাড়ির সংসার টিকিয়ে রাখার চেষ্টা করে গিয়েছেন শ্রাবন্তী। ১৭ অগাস্ট তিনি লিখেছেন, ‘আমি জানি, তুমি আমাকে ভালবাস না। তুমি আমাকে কেয়ারও কর না। কিন্তু তুমিই আমার ভালবাসা।’

মৃতের বাপের বাড়ির সদস্যদের অভিযোগ, পরিবারের সবাইকে নিয়ে চলতে চাইলেও, শ্বশুরবাড়িতে অবহেলা, নির্যাতন ছাড়া কিছুই পায়নি শ্রাবন্তী। যদিও সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন মৃতের শ্বশুর।

এদিন ডায়েরিটি উদ্ধার হলেও, পাওয়া যায়নি দুটো পাতা। কে ছিঁড়ল সেই পাতা? কী লেখা ছিল ওই দুটি পাতায়?  দানা বেঁধেছে রহস্য। পুলিশ জানিয়েছে, স্বামীকে গ্রেফতার করা হলেও, খতিয়ে দেখা হচ্ছে শ্বশুরবাড়ির অন্যান্য সদস্যদের ভূমিকাও।

First Published: Thursday, 10 August 2017 10:01 PM