মিন্টো পার্কে রোজভ্যালির হোটেলে ধুন্ধুমার, টাকা না মেলায় আমানতকারীদের ভাঙচুর

By: Abir Dutta, abp ananda | Last Updated: Thursday, 3 August 2017 7:17 PM
মিন্টো পার্কে রোজভ্যালির হোটেলে ধুন্ধুমার, টাকা না মেলায় আমানতকারীদের ভাঙচুর

কলকাতা:টাকা ফেরতের দাবিতে কলকাতায় রোজভ্যালির হোটেলে ভাঙচুর। পরিস্থিতি সামাল দিতে কালঘাম ছুটল পুলিশের। তদন্ত প্রক্রিয়া নিয়েও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা।আমানতকারীদের বক্তব্য শুধু তদন্তে পেট ভরে না, টাকা চাই।

ক্ষোভটা জমছিল বহুদিন ধরেই। তারই রেশ আছড়ে পড়ল বৃহস্পতিবার, মিন্টো পার্কের কাছে রোজভ্যালির বিলাসবহুল হোটেলে চলল তাণ্ডব।

এজেসি বোস রোডের ওপর জমায়েত হতে শুরু করেন রোজভ্যালির আমানতকারীরা। সংখ্যাটা পাঁচশোর কাছাকাছি! তাঁরা দাবি করেন, হোটেল কর্তৃপক্ষকে আলোচনায় বসতে হবে। অভিযোগ, কথা বলতে চায়নি তারা। চড়তে শুরু করে উত্তেজনার পারদ। আচমকাই হোটেলের ভিতর ঢুকে পড়েন আমানতকারীরা, শুরু হয় চেয়ার ছোড়াছুড়ি।ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় একাধিক কাঁচের দেওয়াল। তাণ্ডবে তছনছ হয়ে যায় হোটেলের রিসেপশন, ভেঙে দেওয়া হয় একাধিক কম্পিউটার।

আতঙ্কিত হয়ে পড়েন হোটেলের অতিথিরা। কয়েকজন হোটেল কর্মীকে আমানতকারীরা হেনস্থা করেন বলে অভিযোগ। অধিকাংশ কর্মীই হোটেল ছেড়ে পালিয়ে যান, বাকিরা লুকিয়ে পড়েন।

এই পরিস্থিতি চলে প্রায় এক ঘণ্টা! খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় বালিগঞ্জ ও তিলজলা থানার পুলিশ। বিক্ষোভকারীদের আটকানোর চেষ্টা করলে শুরু হয় বচসা, ধস্তাধস্তি।

পরিস্থিতি সামাল দিতে লালবাজার থেকে পাঠানো হয় অতিরিক্ত বাহিনী। ভবানীপুর, শেক্সপিয়র সরণী, পার্ক স্ট্রিট-সহ একাধিক থানা থেকেও পৌঁছন পুলিশকর্মীরা। যান ডিসি সাউথ, ডিসি এসইডি-সহ পদস্থ পুলিশ অফিসাররা..এরপর কোনওমতে হোটেল থেকে বের করে আনা হয় আমানতকারীদের। বাইরেও একপ্রস্থ বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। এরপর বিক্ষোভকারীদের মধ্যে থেকে কয়েকজনকে নিয়ে একটি প্রতিনিধি দল তৈরি হয়। পুলিশ আলোচনার আশ্বাস দিলে, ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। গোটা ঘটনার জেরে বেশ কিছুক্ষণের জন্য এজেসি বোস রোডে যান চলাচল ব্যাহত হয়।

First Published: Thursday, 3 August 2017 2:12 PM