দুঃস্থ, মেধাবি ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চশিক্ষার দায়িত্ব নেবে রাজ্য, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Tuesday, 13 June 2017 8:43 PM
দুঃস্থ, মেধাবি ছাত্র-ছাত্রীদের উচ্চশিক্ষার দায়িত্ব নেবে রাজ্য, ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

কলকাতা: রাজ্যের দুঃস্থ ও মেধাবি পড়ুয়াদের পাশে থাকার বার্তা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
মঙ্গলবার মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক, আইসিএসই, আইএসসি, সিবিএসই ও জয়েন্ট এন্ট্রান্সে রাজ্যের ১৩৭ জন কৃতীকে সম্বর্ধনা দেয় সরকার। আলিপুরের সেই অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলার মেধা বিশ্বসেরা। সেই মেধা দিয়েই রাজ্য থেকে বিশ্বকে জয় করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মেধাকে বাংলায় কাজে লাগাও। বিদেশে পড়তে গেলেও বাংলায় ফিরে এসো। বাংলার মেধাই সেরা। মেধা দিয়ে রাজ্যকে সমৃদ্ধ কর।
মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিক থেকে জয়েন্ট এন্ট্রান্স– দারিদ্রের সঙ্গে লড়াই করে কৃতিত্বেরর নজির গড়েছে বহু পড়ুয়া। উচ্চশিক্ষায় তাদের পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, গরিব হওয়াটা অপরাধ নয়। পড়াশোনা বন্ধ হবে না। কর্ম দিয়ে প্রতিষ্ঠিত হও সরকার সব রকম সাহায্য করবে। তাঁর ঘোষণা, অর্থের অবাবে কারও পড়াশোনা বন্ধ হবে না। সরকার পাশে আছে। এমনকী কৃতীদের কাছে, আইপিএস, আইএএস হওয়ার আবেদন জানিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সরকার নতুন নিয়ম করছে।
মেধাবি ও দুঃস্থ পড়ুয়াদের পাশে থাকার আশ্বাস দেওয়ার পাশাপাশি, অনুষ্ঠানে শিক্ষা ক্ষেত্রে সরকারের নানা পদক্ষেপের কথাও তুলে ধরেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, রাজ্যে নতুন ৬০০০ স্কুল তৈরি করেছে সরকার। হয়েছে ১৬টি নতুন বিশ্ববিদ্যালয়। উচ্চশিক্ষার আসন বেড়েছে সাড়ে ৪ লক্ষ। এমবিবিএস-এ আসন বেড়েছে ২০০০। চালু হয়েছে ২০০ কোটি টাকার বিবেকানন্দ মেরিট স্কলারশিপ। মাধ্যমিক, উচ্চমাধ্যমিকের পাশাপাশি, দিল্লি বোর্ডের পড়ুয়ারাও যার সুবিধা পাবে।
মুখ্যমন্ত্রীকে এদিন এত কাছে থেকে পেয়ে উচ্ছ্বসিত কৃতীরা। কৃতী ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে এসেছিলেন তাঁদের বাবা-মা, শিক্ষকরা। অনুষ্ঠান শেষে খুশি তাঁরাও।

First Published: Tuesday, 13 June 2017 8:43 PM