অগ্নিগর্ভ পাহাড়ে ৬ কোম্পানি আধাসেনা পাঠাল কেন্দ্র, রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব

By: ABP Ananda, Web desk | Last Updated: Tuesday, 13 June 2017 8:28 PM
অগ্নিগর্ভ পাহাড়ে ৬ কোম্পানি আধাসেনা পাঠাল কেন্দ্র, রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব

দার্জিলিং: দার্জিলিং পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এদিকে, মোর্চার বনধ ঘিরে সোমবারের পর মঙ্গলবারও অশান্ত ছিল পাহাড়।
পাহাড় ইস্যুতে বারবার কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ দাবি করছে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা। প্রধানমন্ত্রীর পাশাপাশি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকেও চিঠি দিয়েছে তারা। যদিও মোদী সরকার মঙ্গলবার জানিয়ে দিল, দার্জিলিঙে এখনও প্রতিনিধি দল পাঠানোর কথা তারা ভাবছে না। এদিন, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের মুখপাত্র অশোক প্রসাদ বলেন, এখনও পর্যন্ত প্রতিনিধি দল পাঠানোর কোনও পরিকল্পনা নেই। যদিও তিনি যোগ করেন, দার্জিলিং নিয়ে রাজ্যের থেকে রিপোর্ট তলব করা হয়েছে। ইতিমধ্যেই, ৬ কোম্পানি আধা-সামরিক বাহিনী (প্রায় ৬০০ জন) সেখানে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে ২ কোম্পানি মহিলা-বাহিনীও রয়েছে। তিনি জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে।
যদিও এ বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া, পাহাড় শান্ত আছে। কেন্দ্র কোনও রিপোর্ট চায়নি। এদিকে, মোর্চার আহ্বানে সাড়া দিয়ে মঙ্গলবার জিমখানা ক্লাবের সর্বদল বৈঠকে হাজির ছিল জিএনএলএফ, সিপিআরএম, বিজেপি-সহ ৫টি দল। গোখা জনমুক্তি মোর্চার সাধারণ সম্পাদক রোশন গিরি বলেন, ৬টা দল বৈঠক করলাম। সর্বসম্মতভাবে পুলিশের দমননীতির নিন্দা প্রস্তাব নিয়েছি। গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে আমরা সব দল একমত হয়েছি। জিএনএলএফ-ও সর্বোতভাবে গোর্খ্যাল্যান্ডের দাবি সমর্থন করছে।
তাৎপূর্ণ বিষয় হল এই জিএনএলএফ-ই সদ্য সমাপ্ত পুর নির্বাচনে, তৃণমূলের জোটসঙ্গী ছিল! দার্জিলিং, কার্শিয়ং, কালিম্পং, মিরিক..চার পুরসভাতেই মোর্চার বিরুদ্ধে একসঙ্গে লড়েছিল দু’দল। তাদের গলাতেই এখন শোনা যাচ্ছে অন্য সুর! গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে লড়াইয়ে বিমল গুরুঙের নেতৃত্বেও তাদের আপত্তি নেই!
এই প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে জিএনএলএফ নেতা নীরজ জিম্বা বলেন, ওটা নির্বাচনী সমঝোতা ছিল। অন্য কিছু নয়। রাজনীতিতে অনেক কিছু হয়। সুবাস ঘিসিং প্রথম দাবি তুলেছিলেন, তাই গোর্খ্যাল্য্যান্ডের আন্দোলনে আমরা আছি। গুরুঙ্গের নেতৃত্বে আপত্তি নেই। যৌথ নেতৃত্বে দাবি আদায়ের চেষ্টা করব।
পাহাড়ে মোর্চার ডাকা সর্বদলে হাজির বিজেপি। সমতলে দিলীপ ঘোষদের গলায় তৃণমূল সম্পর্কে কটাক্ষের সুর। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, মমতা গিয়ে গণ্ডগোল করছে। সুর চড়িয়েছে কংগ্রেস-সহ অন্য বিরোধীরাও। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেন, একদিকে মমতার দিদিগিরি, আরেকদিকে গুরুঙের দাদাগিরি। রাজীব গাঁধী তো গোর্খা কাউন্সিল করেছিলেব। তৃণমূল সরকার তো গোর্খ্যাল্যান্ড টেরিটোরিয়াল অ্যাডমিনিস্ট্রেশন করে দিয়েছে!
এদিকে, মোর্চার বনধের দ্বিতীয়দিনেও অশান্ত ছিল পাহাড়। এদিন সকাল দশটা নাগাদ চকবাজার থেকে শুরু হয় মোর্চার মিছিল। মিছিল এগোতে শুরু করে ম্যালের দিকে। কিন্তু, পুলিশ থাকায় মিছিল গলিপথ দিয়ে ঘুরে ফের চকবাজারে! কিন্তু, মিছিলের অভিমুখ জেলাশাসকের দফতরের দিকে এগোতেই তৎপর হয়ে ওঠে পুলিশ। একদিক থেকে দার্জিলিঙের এসপি, অন্যদিক থেকে সিআইএফের এসপি বাহিনী নিয়ে মিছিল ঘিরে ফেলেন।
এরপরই রাস্তায় বসে পড়েন নারী মোর্চার কর্মীরা। সেইসময় মিছিলের পিছনের অংশকে তাড়া করে র‌্যাফ। পিছু হঠেন বিক্ষোভকারীরা। মহিলা মোর্চার মোকাবিলায় সক্রিয় হয় মহিলা পুলিশ। এই পরিস্থিতিতে বন্ধ মার্কেট থেকে পুলিশের দিকে ইট ছোড়া হলে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। শুরু হয় লাঠিচার্জ। চকবাজার থেকে তাড়া খেয়ে সিংমারিতে গিয়ে, দলীয় দফতরের বাইরে রাস্তায় বসে পড়ে মোর্চার কর্মীরা। সেখানেও পৌঁছে যান পুলিশ সুপার। দার্জিলিঙের পুলিশ সুপার অখিলেশ চতুর্বেদী বলেন, বেআইনি মিছিল বরদাস্ত করা হবে না।
অবরোধকারীদের সরাতে গেলে আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। সেনাবাহিনীর পাশাপাশি পৌঁছে যায় র‌্যাফ, সিআরপিএফ-ও। যান পাহাড়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত ২ আইপিএস অফিসার জাভেদ শামিম, সিদ্ধিনাথ গুপ্ত। এরপর সিংমারি থেকে সরে পাতলেবাস যাওয়ার রাস্তায় বসে পড়ে মোর্চ। পরে সেখান থেকেও অবরোধকারীদের হঠিয়ে দেয় পুলিশ।
মোর্চা-পুলিশ এই লুকোচুরির মধ্যেই মঙ্গলবার পাহাড় কার্যত বন্ধ ছিল। নেপথ্যে ২৪টি শ্রমিক সংগঠনকে নিয়ে তৈরি যৌথ মঞ্চের সাধারণ ধর্মঘট। মোর্চা তাদের বনধ থেকে স্কুল-কলেজকে বাদ দিলেও, আদতে ভিন্ন অভিজ্ঞতা হয়েছে পড়ুয়াদের। প্রথম দিন তাদের ডাকা সরকারি অফিস বনধে কোনও প্রভাব না পড়লেও, সাধারণ ধর্মঘটের অছিলায় এদিন রাস্তায় নামল মোর্চা। উদ্দশ্যে, এটাই প্রমাণ করা যে, তাদের ডাকেই সাড়া দিচ্ছে পাহাড়বাসী।
এসবের মধ্যেই পাহাড়ে শান্তি ফেরানোর দাবিতে ১৭ জুন শিলিগুড়িতে মিছিল করবে বিজেপি।

First Published: Tuesday, 13 June 2017 8:17 AM

Related Stories

পাহাড়ে অশান্তি অব্যাহত, জিটিএ-র ইঞ্জিনিয়ারিং দফতর, বিজনবাড়ির ধোবিতলা পঞ্চায়েত অফিসে আগুন
পাহাড়ে অশান্তি অব্যাহত, জিটিএ-র ইঞ্জিনিয়ারিং দফতর, বিজনবাড়ির...

দার্জিলিং: পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মোর্চার আন্দোলনের জেরে পাহাড়ে

জিএসটি-র প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ধর্মঘটে বস্ত্রশিল্পীরা
জিএসটি-র প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ধর্মঘটে বস্ত্রশিল্পীরা

কলকাতা: বস্ত্রশিল্পে ৫ শতাংশ জিসএসটির প্রতিবাদে ধর্মঘটে রাজ্যের

নিজের সন্তানের জন্য সম্পত্তি নিশ্চিত করতে স্বামীর প্রথম পক্ষের ছেলেকে ‘খুন’, গ্রেফতার সৎ মা
নিজের সন্তানের জন্য সম্পত্তি নিশ্চিত করতে স্বামীর প্রথম পক্ষের...

উত্তর দিনাজপুর: নিজের সন্তানের ভবিষ্যত্‍ সুরক্ষিত করতে স্বামীর প্রথম

ধর্ষণের মামলা তুলতে চাপ-হুমকি, কাজ না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ‘খুন’, অধরা অভিযুক্ত প্রতিবেশী যুবক
ধর্ষণের মামলা তুলতে চাপ-হুমকি, কাজ না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ‘খুন’,...

মালদা: প্রথমে ধর্ষণ। পরে মামলা তুলতে হুমকি, চাপ। কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায়

পিঠে টিউবলাইট ভেঙে বিক্ষোভ,ত্রিপাক্ষিক চুক্তিপত্র পুড়িয়ে পাহাড়ে আন্দোলন আরও তীব্র মোর্চার
পিঠে টিউবলাইট ভেঙে বিক্ষোভ,ত্রিপাক্ষিক চুক্তিপত্র পুড়িয়ে...

দার্জিলিং: পাহাড়ে আন্দোলনের ধার বাড়াচ্ছে মোর্চা। চকবাজারে পিঠে

আজকের রাশিফল
আজকের রাশিফল

মেষ সংসারের জন্য শান্তি কামনা । পাওনা আদায় নিয়ে কোনও বিবাদ হতে পারে । শত্রু

গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে রাজ্যের পর চাপ কেন্দ্রকে, আমরণ অনশন- আত্মাহুতির হুঁশিয়ারি মোর্চার
গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে রাজ্যের পর চাপ কেন্দ্রকে, আমরণ অনশন-...

দার্জিলিং: শিলিগুড়িতে নেপালি গাড়িচালকদের ওপর আচমকা আক্রমণ ও গাড়ি

হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা, ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র
হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা, ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র

দীঘা: হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা। ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র। ঢেউয়ের আঘাতে

শিলিগুড়িতে গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু, স্বামী গ্রেফতার
শিলিগুড়িতে গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু, স্বামী গ্রেফতার

শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ির লেকটাউন এলাকায় রহস্যজনকভাবে মারা গেলেন এক গৃহবধূ।

ঈদ উপলক্ষ্যে পাহাড়ে বনধ আংশিক শিথিল
ঈদ উপলক্ষ্যে পাহাড়ে বনধ আংশিক শিথিল

দার্জিলিং: পাহাড়ে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার ডাকা সর্বাত্মক বনধের আজ দ্বাদশ

Recommended