এবার মালদায় উদ্ধার ৯২ হাজার মূল্যের ২০০০ টাকার জালনোট

By: Sanat Jha & Abhijit Chowdhury, ABP Ananda | Last Updated: Sunday, 5 March 2017 7:28 PM
এবার মালদায় উদ্ধার ৯২ হাজার মূল্যের ২০০০ টাকার জালনোট

মালদা: খিদিরপুরের পর এবার মালদার রথবাড়ি। নতুন দু’হাজার টাকার জাল নোট পাচারের সময় হাতে নাতে গ্রেফতার এক ব্যক্তি। ধৃতের থেকে উদ্ধার ৯২ হাজার টাকার জাল নোট। সবই নতুন দু’হাজারের নোট।
পুলিশ সূত্রে খবর, শনিবার, রাত ১০টা নাগাদ রথবাড়ি এলাকা থেকে মুকুলেশ মিঞা ওরফে ভুট্টু নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তাঁর থেকে উদ্ধার হয় ৯২ হাজার টাকার জাল নোট।
তদন্তকারীদের দাবি, ধৃত ব্যক্তি মালদার কালিয়াচকের বাসিন্দা। সে ক্যারিয়ারের কাজ করছিল। মালদা স্টেশনে তাঁর ওই টাকা পাচারের কথা ছিল বলে, ধৃতকে প্রাথমিক জেরায় জেনেছে পুলিশ।
দু’দিন আগে গত বৃহস্পতিবার খিদিরপুরের ফ্যান্সি মার্কেট থেকে উদ্ধার হয় ৫৬ লক্ষ ৭৪ হাজার টাকার জাল নোট। সেবারও সমস্ত নোটই ছিল নতুন ২ হাজারের। নোটের বান্ডিলের গায়ে লাগানো ছিল রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের স্টিকার। ঘটনায় ৫ জনকে গ্রেফতার করেন গুণ্ডা দমন শাখার গোয়েন্দারা।
পরে ধৃতদের জেরা করে শুক্রবার হাওড়ার বাগনানে একটি সাইবার কাফেতে হানা দিয়ে আরও এক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ওই কাফেতে প্রথমে আসল নোট স্ক্যান করে জাল নোটের ফরম্যাট বানানো হত। তারপর তা প্রিন্টারে ছাপা হত বলে তদন্তকারীরা জানতে পেরেছেন।
গত মাসে জাল নোট পাচারের অভিযোগে মালদা ও মুর্শিদাবাদ মিলিয়ে ৫ জনকে গ্রেফতার করেছিল পুলিশ। প্রত্যেকের থেকেই উদ্ধার হয় নতুন ২০০০ টাকার জাল নোট। গত মাসের ২৮ তারিখে মালদার বৈষ্ণবনগর থেকে উদ্ধার হয় ৮ হাজার টাকার জাল নোট। গ্রেফতার হয় দুই পাচারকারী।
তার আগে ২০ তারিখে ওই বৈষ্ণবনগরেই ৪৮টি জাল নোট নিয়ে গ্রেফতার হয় এক পাচারকারী। ১৫ তারিখ, মালদার ভারত বাংলাদেশ সীমান্তে ২ লক্ষ টাকা জাল নোট উদ্ধার করে বিএসএফ। ওই দিনই কালিয়াচক থেকে গ্রেফতার হয় এক ব্যক্তি। পাওয়া যায় ৩টি জাল নোট। ৮ তারিখ মুর্শিদাবাদের ইসলামপুরে ৮০ হাজার টাকা সহ এক পাচারকারীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
গত বছর ৮ নভেম্বর, নোট বাতিলের ঘোষণার পিছনে কেন্দ্রীয় সরকারের যুক্তি ছিল জাল নোট বন্ধ করা। কিন্তু নোট বাতিলের ৪ মাসের মাথাতেও ছবিটা যে আদৌ বদলায়নি, মালদা ও খিদিরপুরের ঘটনায় তার প্রমাণ মিলল হাতেনাতে।

First Published: Sunday, 5 March 2017 7:25 PM