রানাঘাট সন্ন্যাসিনী ধর্ষণকাণ্ডে বাংলাদেশি নজরুলের আমৃত্যু হাজতবাস, ৫ জনের ১০ বছর জেল

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Wednesday, 8 November 2017 8:21 PM
রানাঘাট সন্ন্যাসিনী ধর্ষণকাণ্ডে বাংলাদেশি নজরুলের আমৃত্যু হাজতবাস, ৫ জনের ১০ বছর জেল

কলকাতা: রানাঘাটে বৃদ্ধা সন্ন্যাসিনী ধর্ষণকাণ্ডে দোষী সাব্যস্ত বাংলাদশি নজরুল ইসলামকে আমৃত্যু কারাদণ্ডের সাজা দিল আদালত। তার ৫ সঙ্গীকে ১০ বছরের জেলহাজতের সাজা দেন বিচারক।
‘ক্ষমার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। এক সন্ন্যাসিনীর অন্তরাত্মা এতে আঘাত পেয়েছে। আমি মনে করি, একজন সন্ন্যাসিনীর সমস্ত সত্ত্বাকে যে চরম ভাবে লাঞ্ছিত করেছে, সে সর্বোচ্চ সাজা পাওয়ারই যোগ্য। সন্ন্যাসিনীর অন্তরাত্মাকে আঘাত, যিশুও ক্ষমা করবেন না।’ এই মন্তব্য করেই বুধবার রানাঘাটকাণ্ডে সাজা ঘোষণা করেন নগর দায়রা আদালতের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক কুমকুম সিংহ।
গতকালই, এই মামলার সকল ৬ অভিযুক্ত– নজরুল ইসলাম, মিলন কুমার সরকার, ওহিদুল ইসলাম, মহম্মদ সেলিম শেখ, খালেদার রহমান এবং গোপাল সরকারকে ধর্ষণ ও ডাকাতি ও ষড়যন্ত্র করার জন্য বিভিন্ন ধারায় দোষী সাব্যস্ত করেছিল আদালত।
এদিন ৫ দোষী সাজা কমানোর আবেদন জানায়। এর বিরোধিতা করে সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানায় সরকারপক্ষ। এরপরই বিচারক জানিয়ে দেন, ধর্ষণে দোষী সাব্যস্ত নজরুল ইসলামকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হল। অনাদায়ে আরও আড়াই বছর কারাদণ্ড। এই সময় বিচারক উল্লেখ করেন, এখনকার আইন অনুযায়ী, যাবজ্জীবন মানে আমৃত্যু কারাবাস।
এর সঙ্গে ডাকাতির দায়ে নজরুলের ১০ বছর কারাদণ্ড এবং ২০ হাজার টাকা জরিমানা হয়েছে। পাশাপাশি, ষড়যন্ত্রের দায়ে তার ১০ বছর কারাদণ্ড এবং ১০ হাজার টাকা জরিমানার নির্দেশ দিয়েছে আদালত।
এছাড়া, আরও এক মহিলাকে নিগ্রহ ও যৌন হেনস্থার অভিযোগ প্রমাণিত হয় নজরুলের বিরুদ্ধে। সেখানেও তাকে যথাক্রমে, পাঁচ ও তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের সাজা দেয় আদালত। অনাদায়ে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা।
ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অপরাধে গোপাল সরকারের ১০ বছর কারাদণ্ড, ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন বিচারক। সঙ্গে, দুষ্কৃতীদের আশ্রয় দেওয়ার দায়ে ৭ বছর কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা।
বাকি ৪ জন অর্থাৎ‍, মিলন সরকার, ওহিদুল ইসলাম, মহম্মদ সেলিম শেখ এবং খালেদুল রহমানকে ডাকাতি ও ষড়যন্ত্রে জড়িত থাকার অপরাধে ১০ বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং ৩০ হাজার টাকা করে জরিমানার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। অনাদায়ে আড়াই বছর কারাদণ্ড।
বিচারক জানিয়েছেন, জরিমানার অর্ধেক টাকা নির্যাতিতাকে দিতে হবে। তিনি যেহেতু আধ্যাত্মিক জগতের মানুষ, তাই নির্যাতিতা যদি ওই টাকা নিতে অস্বীকার করেন, তাহলে তিনি যে সংস্থার সঙ্গে যুক্ত, তাদের দিতে হবে। বিচারক জানান, সব সাজা একসঙ্গে চলবে।
শাস্তি ঘোষণার পর কনভেন্ট অফ জেসাস অ্যান্ড মেরির সুপিরিয়র জেনারেল সিস্টার মনিকা জোসেফ বলেন, রেড লেটার ডে। বিচার পেলাম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধন্যবাদ।
২০১৫ সালের ১৪ মার্চ ভোররাত। রানাঘাটের গাঙনাপুর কনভেন্ট স্কুলে ঢুকে লুঠপাটের পাশাপাশি এক বৃদ্ধ সন্ন্যাসিনীকে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠে। মঙ্গলবার দোষী সাব্যস্ত করা হয় ৬ জনকে। এদিন ঘোষণা হল সাজা।

First Published: Wednesday, 8 November 2017 5:35 PM

Related Stories

পরিবারের সম্মান রক্ষায় খুন? মামাতো বোনের সঙ্গে ভাগ্নের প্রেম সন্দেহে কিশোরকে পিটিয়ে মারল চার মামা
পরিবারের সম্মান রক্ষায় খুন? মামাতো বোনের সঙ্গে ভাগ্নের প্রেম...

অন্ডাল: পরিবারের সম্মান রক্ষার অজুহাতে রাজ্যে খুন। মামাতো বোনের সঙ্গে

সোনারপুরে স্মার্টফোন না পেয়ে ছাত্রর ‘আত্মহত্যা’
সোনারপুরে স্মার্টফোন না পেয়ে ছাত্রর ‘আত্মহত্যা’

সোনারপুর: স্মার্ট ফোনের আবদার পূরণ না হওয়ায় ফের আত্মহত্যা। এবার ঘটনাস্থল

আজকের রাশিফল
আজকের রাশিফল

মেষ আজ সারাদিন অশান্তি থেকে সাবধান থাকুন। পেটের সমস্যা বাড়তে পারে।

প্রেমের ফাঁদ পেতে হাওড়ার কলেজছাত্রীকে ‘ব্ল্যাকমেল’, গাজিয়াবাদ থেকে গ্রেফতার দুই ছেলের বাবা
প্রেমের ফাঁদ পেতে হাওড়ার কলেজছাত্রীকে ‘ব্ল্যাকমেল’, গাজিয়াবাদ...

হাওড়া: সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটে প্রেমের ফাঁদ পেতেছিল দুই ছেলের বাবা।

জমি-বিবাদে রণক্ষেত্র উত্তর দিনাজপুরের পাঞ্জিপাড়া, আদিবাসীদের ছোঁড়া তিরে জখম পুলিশ
জমি-বিবাদে রণক্ষেত্র উত্তর দিনাজপুরের পাঞ্জিপাড়া, আদিবাসীদের...

উত্তর দিনাজপুর: ফের জমি নিয়ে তুলকালাম। দক্ষিণ ২৪ পরগনার ভাঙড়ের ছায়া এবার

ইন্টারলকিং সংস্কারের জন্য খড়গপুরে বন্ধ ট্রেন, দর হাঁকছেন গাড়িচালকরা, ভোগান্তি নিত্যযাত্রীদের
ইন্টারলকিং সংস্কারের জন্য খড়গপুরে বন্ধ ট্রেন, দর হাঁকছেন...

পশ্চিম মেদিনীপুর: একদিকে বন্ধ ট্রেন, তার ওপর ঝোপ বুঝে কোপ মারছেন বিভিন্ন

সোশাল সাইটে ফাঁদ পেতে একাধিক বিয়ে, তরুণীকে সাড়ে ৮ লক্ষ টাকা প্রতারণা, খুনের চেষ্টা, গ্রেফতার ‘জামাই’
সোশাল সাইটে ফাঁদ পেতে একাধিক বিয়ে, তরুণীকে সাড়ে ৮ লক্ষ টাকা...

বীরভূম: সোশাল নেটওয়ার্কিং সাইটে ফাঁদ পেতে একাধিক বিয়ে। নদিয়ার তরুণীকে

 আরও বেশি রোগী পাঠানোর জন্য চাপ দিচ্ছে ডায়াগনস্টিক সেন্টার, জলপাইগুড়ির চিকিৎসকের আত্মহত্যার চেষ্টা
আরও বেশি রোগী পাঠানোর জন্য চাপ দিচ্ছে ডায়াগনস্টিক সেন্টার,...

জলপাইগুড়ি: ডায়াগনস্টিক সেন্টারের রোগী পাঠানোর দাবির চাপ সহ্য করতে না

সোনারপুরে বাইক না পেয়ে ‘আত্মঘাতী’ ছাত্র!
সোনারপুরে বাইক না পেয়ে ‘আত্মঘাতী’ ছাত্র!

সোনারপুর: জীবনের থেকেও কি দামি বাইক? দক্ষিণ ২৪ পরগনার সোনারপুরের ঘটনায় এই

এবার বিরোধীদের চোখ উপড়ে নেওয়ার হুমকি অনুব্রতর
এবার বিরোধীদের চোখ উপড়ে নেওয়ার হুমকি অনুব্রতর

মহম্মদবাজার: ফের বিস্ফোরক তৃণমূল কংগ্রেসের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত