পারিবারিক বিবাদে ভাইপো-ভাইঝিকে পুড়িয়ে ‘খুন’, আশঙ্কাজনক শিশুদের মা, অভিযুক্ত কাকা পলাতক

By: Somit Sengupta, Amitabha Rath & Somnath Das, ABP Ananda | Last Updated: Friday, 16 June 2017 8:58 PM
পারিবারিক বিবাদে ভাইপো-ভাইঝিকে পুড়িয়ে ‘খুন’, আশঙ্কাজনক শিশুদের মা, অভিযুক্ত কাকা পলাতক

ঘাটাল (পশ্চিম মেদিনীপুর):  পারিবারিক বিবাদের আগুন কি পুড়িয়ে ছারখার করে দিতে পারে রক্তের সম্পর্ককেও? ঘাটালে দুই কিশোর-কিশোরীকে ঘুমের মধ্যে পুড়িয়ে খুনের ঘটনায় এখন বড় হয়ে উঠছে এই প্রশ্নটাই। কারণ, এই ঘটনায় খুনের অভিযোগ উঠেছে মৃতদের কাকার বিরুদ্ধে। অর্থাৎ রক্তের সম্পর্কেই রক্তারক্তি!
স্থানীয় সূত্রে দাবি, ঘাটাল থানার আনন্দপুর গ্রামের বাসিন্দা হাসেম আলির সঙ্গে কিছুদিন ধরেই তাঁর ভাই ইসমাইলের পারিবারিক বিবাদ চলছিল। হাসেম কর্মসূত্রে মুম্বইয়ে থাকেন। ১৮ বছরের মেয়ে ও ১৫ বছরের ছেলেকে নিয়ে এখানে থাকেন তাঁর স্ত্রী ফতেমা। একটু দূরে অন্য বাড়িতে থাকেন হাসেমের ভাই ইসমাইল ও তাঁর পরিবার।
বৃহস্পতিবার রাতে ছেলে-মেয়েকে পাশে নিয়ে ঘুমোচ্ছিলেন ফতেমা। বিছানার পাশের জানলা খোলা ছিল। অভিযোগ, সেখান দিয়ে বিছানায় কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন ইসমাইল।
মুহূর্তের মধ্যে আগুন গ্রাস করে ফতেমা বিবির ঘুমন্ত ছেলে-মেয়ের গোটা শরীর। আগুন লেগে যায় ফতেমার গায়েও। ইসমাইলের আক্রোশ কতটা ছিল, তা আরও স্পষ্ট হয়ে যায় এর পরের ঘটনায়। স্থানীয় সূত্রে দাবি, ফতেমা ও তাঁর সন্তানরা যাতে ঘর থেকে বেরোতে না পারে, সেজন্য বাইরে থেকে দরজায় তালা দিয়ে দেন ইসমাইল।
এমনকী, প্রতিবেশীদের বাড়ির দরজাতেও বাইরে থেকে তালা আটকে দেন ইসমাইল, যাতে তাঁরা কেউ ফতেমাদের বাঁচাতে না আসতে পারে। এক প্রতিবেশী বলেন, রাতে চিৎকার শুনে দরজা খুলতে গিয়ে দেখি বাইরে থেকে আটকানো। ভেঙে ঢুকি।
কাকার লাগানো আগুনে যন্ত্রণাটয় ছটফট করতে করতে ঘরের মধ্যেই মৃত্যু হয় ফতেমার ১৮ বছরের মেয়ে রেশমি এবং ১৫ বছরের ছেলে রাজীবের। ফতেমার শরীরের অনেকখানি অংশও পুড়ে যায়। দরজা ভেঙে তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে ঘাটাল মহকুমা হাসপাতাল ও পরে সেখান থেকে এসএসকেএমে পাঠানো হয়।
এরপরই ক্ষিপ্ত প্রতিবেশীরা চড়াও হয় অভিযুক্ত ইসমাইলের বাড়িতে। তাঁর বাড়িতেও আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। রণক্ষেত্র পরিস্থিতির খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় পুলিশ। যান ঘাটালের তৃণমূল বিধায়কও। ভাপো-ভাইজি খুনে অভিযুক্ত কাকা পলাতক।

First Published: Friday, 16 June 2017 11:45 AM

Related Stories

পাহাড়ে অশান্তি অব্যাহত, জিটিএ-র ইঞ্জিনিয়ারিং দফতর, বিজনবাড়ির ধোবিতলা পঞ্চায়েত অফিসে আগুন
পাহাড়ে অশান্তি অব্যাহত, জিটিএ-র ইঞ্জিনিয়ারিং দফতর, বিজনবাড়ির...

দার্জিলিং: পৃথক গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে মোর্চার আন্দোলনের জেরে পাহাড়ে

জিএসটি-র প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ধর্মঘটে বস্ত্রশিল্পীরা
জিএসটি-র প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে ধর্মঘটে বস্ত্রশিল্পীরা

কলকাতা: বস্ত্রশিল্পে ৫ শতাংশ জিসএসটির প্রতিবাদে ধর্মঘটে রাজ্যের

নিজের সন্তানের জন্য সম্পত্তি নিশ্চিত করতে স্বামীর প্রথম পক্ষের ছেলেকে ‘খুন’, গ্রেফতার সৎ মা
নিজের সন্তানের জন্য সম্পত্তি নিশ্চিত করতে স্বামীর প্রথম পক্ষের...

উত্তর দিনাজপুর: নিজের সন্তানের ভবিষ্যত্‍ সুরক্ষিত করতে স্বামীর প্রথম

ধর্ষণের মামলা তুলতে চাপ-হুমকি, কাজ না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ‘খুন’, অধরা অভিযুক্ত প্রতিবেশী যুবক
ধর্ষণের মামলা তুলতে চাপ-হুমকি, কাজ না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ‘খুন’,...

মালদা: প্রথমে ধর্ষণ। পরে মামলা তুলতে হুমকি, চাপ। কিন্তু তাতেও কাজ না হওয়ায়

পিঠে টিউবলাইট ভেঙে বিক্ষোভ,ত্রিপাক্ষিক চুক্তিপত্র পুড়িয়ে পাহাড়ে আন্দোলন আরও তীব্র মোর্চার
পিঠে টিউবলাইট ভেঙে বিক্ষোভ,ত্রিপাক্ষিক চুক্তিপত্র পুড়িয়ে...

দার্জিলিং: পাহাড়ে আন্দোলনের ধার বাড়াচ্ছে মোর্চা। চকবাজারে পিঠে

আজকের রাশিফল
আজকের রাশিফল

মেষ সংসারের জন্য শান্তি কামনা । পাওনা আদায় নিয়ে কোনও বিবাদ হতে পারে । শত্রু

গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে রাজ্যের পর চাপ কেন্দ্রকে, আমরণ অনশন- আত্মাহুতির হুঁশিয়ারি মোর্চার
গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে রাজ্যের পর চাপ কেন্দ্রকে, আমরণ অনশন-...

দার্জিলিং: শিলিগুড়িতে নেপালি গাড়িচালকদের ওপর আচমকা আক্রমণ ও গাড়ি

হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা, ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র
হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা, ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র

দীঘা: হেনরি আইল্যান্ডের পর এবার দিঘা। ফের প্রাণ কাড়ল সমুদ্র। ঢেউয়ের আঘাতে

শিলিগুড়িতে গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু, স্বামী গ্রেফতার
শিলিগুড়িতে গৃহবধূর রহস্যমৃত্যু, স্বামী গ্রেফতার

শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ির লেকটাউন এলাকায় রহস্যজনকভাবে মারা গেলেন এক গৃহবধূ।

ঈদ উপলক্ষ্যে পাহাড়ে বনধ আংশিক শিথিল
ঈদ উপলক্ষ্যে পাহাড়ে বনধ আংশিক শিথিল

দার্জিলিং: পাহাড়ে গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার ডাকা সর্বাত্মক বনধের আজ দ্বাদশ

Recommended