আমেরিকায় বান্ধবীর দেহ ফ্রিজে পুরে দিল 'প্রেমিক', গ্রেফতার

By: ABP Ananda, Web desk | Last Updated: Friday, 4 August 2017 3:53 PM
আমেরিকায় বান্ধবীর দেহ ফ্রিজে পুরে দিল 'প্রেমিক', গ্রেফতার

ওহিও: আমেরিকার ওহিওতে মৃত বান্ধবীর দেহ মাসের পর মাস ফ্রিজে পুরে রেখে দিল এক ব্যক্তি। আর এক মহিলার সঙ্গে বসবাস করতে শুরু করে সে, সেই মহিলা আবার থাকত অভিযুক্তর মৃত বান্ধবীর পরিচয়ে। মৃতের বাড়িতে তাঁর পরিচয়ে থাকত, তাঁর ক্রেডিট কার্ডই ব্যবহার করত, তাঁর কুকুরের দেখভালও করত।

স্থানীয় ইয়াংস্টাউন এলাকার কাছে একটি বাড়িতে উদ্ধার হয়েছে মৃত শ্যানন গ্রেভসের দেহ। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত আর্তুরো নোভোয়া ও তার নতুন বান্ধবী ক্যাটরিনা লেটনকে। ধৃতদের বিরুদ্ধে মৃতদেহ নিগ্রহ বা কর্পস অ্যাবিউজের অভিযোগ আনা হয়েছে।

শ্যানন গ্রেভসকে শেষ দেখা যায় ফেব্রুয়ারি মাসে। জুন মাসে তাঁর পরিবার পুলিশে রিপোর্ট করে। তাঁর বোন বলেন, শ্যানন মাঝে মধ্যেই পরিবারকে না জানিয়ে দীর্ঘদিন নিখোঁজ থাকতেন। তাই প্রথমে এ নিয়ে কিছু মনে হয়নি তাঁদের। কিন্তু নিজের গাড়ি, কুকুর আর ফোন রেখে যাওয়ায় তাঁদের সন্দেহ হয়।

শ্যানন যে নিখোঁজ তা পুলিশ নিশ্চিত হওয়ার আগেই তাঁর বয়ফ্রেন্ড আর্তুরো নোভোয়া ক্যাটরিনা লেটনের সঙ্গে থাকতে শুরু করেন। শ্যাননের বাড়িতেই থাকতেন তাঁরা, ক্যাটরিনা ব্যবহার করতেন তাঁর গাড়ি, ফোন ও ক্রেডিট কার্ড। যত্ন নিতেন তাঁর কুকুরেরও।

এর মধ্যে নোভোয়া এক বন্ধুর কাছে নিজের ফ্রিজটি রেখে আসেন। কিন্তু এক সপ্তাহ সেটি টানা বন্ধ রাখায় বন্ধুর সন্দেহ হয়। ফ্রিজ খুলে মৃতদেহ দেখতে পান তিনি, খবর দেন পুলিশে।

 

 

First Published: Friday, 4 August 2017 3:49 PM