পাকিস্তানে নিরাপদ ডেরা নেই সন্ত্রাসবাদীদের, আমেরিকায় পাক রাষ্ট্রদূতের দাবিতে হাসির রোল

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Thursday, 8 June 2017 8:46 PM
 পাকিস্তানে নিরাপদ ডেরা নেই সন্ত্রাসবাদীদের, আমেরিকায় পাক রাষ্ট্রদূতের দাবিতে হাসির রোল

ওয়াশিংটন: পাকিস্তানে সন্ত্রাসবাদীদের কোনও নিরাপদ ডেরাই নেই! ওয়াশিংটনের এক বিশেষজ্ঞ থিঙ্কট্যাঙ্কের সামনে বারবার দাবি করলেন আমেরিকায় নিযুক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতে আইজাজ আহমেদ চৌধুরি।

তালিবান নেতা মোল্লা ওমরের করাচির হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছিল। কিন্তু সে কখনই আফগানিস্তান ছাড়েনি বলেও দাবি করেন তিনি। হাসির রোল ওঠে সভায়। বিব্রত আইজাজ মন্তব্য করেন, এতে হাাসির কী আছে!

পাল্টা প্রাক্তন মার্কিন কূটনীতিক জালমায়ে খলিলজাদ দাবি করেন, আমাদের কাছে কিন্তু মোল্লা ওমরের পাকিস্তানে উপস্থিত থাকার জোরালো প্রমাণ আছে। পাকিস্তানে সে কোথায় থাকত, কোথায় গিয়েছিল, হাসপাতালে ছিল, সব তথ্যই আছে। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন তো অনেকে মনে করত, ওসামা বিন লাদেনও কখনই আফগানিস্তান ছাড়েনি।

আফগানিস্তান, ইরাক ও রাষ্ট্রপুঞ্জে আমেরিকার প্রতিনিধি খলিলজাদ অ্যাটলান্টিক কাউন্সিলের সাউথ এশিয়া সেন্টারে ওই আলোচনাসভায় বলেন, একদিকে যখন অভিযান চলছে, তখন হক্কানি নেটওয়ার্ককে নিরাপদে সরিয়ে দেওয়ার প্রমাণও আছে।

খলিলজাদের সুরে ভারতের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মণীষ তেওয়ারি, শীর্ষ মার্কিন থিঙ্কট্যাঙ্ক বিশেষজ্ঞ অ্যাসলে টেলিসও দাবি করেন, সন্ত্রাসবাদীদের নিরাপদ ঘাঁটি পাকিস্তানে বহাল রয়েছে এবং এতে মদত আছে পাকিস্তানের ক্ষমতাসীন প্রশাসনের। রীতিমতো অস্বস্তিতে পড়ে যান আইজাজ।

তবে তার আগে তিনি বলেন, কোন নিরাপদ ডেরার কথা আপনারা বলছেন? আপনারা অতীত নিয়েই পড়ে থাকলে বর্তমানের সমাধান করতে পারবেন না। হক্কানি, তালিবান আমাদের মিত্র নয়। আমাদের ছায়া সংগঠনও নয়। কোন কোয়েটা শুরার কথা বলছেন, কোন পেশোয়ার শুরা?

টেলিস তাঁকে বলেন, পাকিস্তানে একদিকে যেমন সন্ত্রাসবাদীদের নিরাপদ আশ্রয় রয়েছে, পাশাপাশি আফগানিস্তান থেকেও প্রচুর অর্থ, লোকলস্কর সরবরাহ করা হচ্ছে। কিন্তু তালিবান নেতারা পাকিস্তানে ঘাঁটি গেড়ে বসেছে, অস্বীকার করার জায়গা নেই।

তেওয়ারি বলেন, পাকিস্তানের গুরুত্ব দিয়ে ভাবার সময় এসেছে, কেন আফগান প্রেসিডেন্ট আশরফ গনি, যিনি পাক সেনাপ্রধানের সঙ্গে দেখা করতে রাওয়ালপিন্ডি গিয়েছিলেন, পাকিস্তানের বিরোধী হয়ে গেলেন! গনিকে বাধ্য হয়েই বলতে হয়েছে যে, আফগানিস্তানের সঙ্গে অঘোষিত যুদ্ধে নেমেছে পাকিস্তান।

First Published: Thursday, 8 June 2017 8:27 PM