নিজের প্রসব পিছিয়ে দিয়ে অপর এক মহিলার সন্তান জন্মে সাহায্য করলেন চিকিৎসক

By: Web Desk, ABP Ananda | Last Updated: Wednesday, 2 August 2017 6:30 PM
নিজের প্রসব পিছিয়ে দিয়ে অপর এক মহিলার সন্তান জন্মে সাহায্য করলেন চিকিৎসক

ছবি সৌজন্যে ফেসবুক

ফ্রাঙ্কফুর্ট: নিজে সন্তাসম্ভবা। সন্তানের জন্ম দেওয়ার জন্য তৈরিও ছিলেন। কিন্তু ঠিক সেই সময় শুনতে পান, অপর এক মহিলার সন্তানের অবস্থা ভাল নয়। যত দ্রুত সম্ভব সন্তানের প্রসব হওয়া দরকার। সেখানে সেই সময় অন্য কোনও চিকিৎসক ছিলেন না। তাই শয্যা ছেড়ে উঠে চিকিৎসকের পোশাক ও জুতো পরে সংশ্লিষ্ট মহিলার ঘরে গিয়ে তাঁর সন্তান প্রসবে সাহায্য করলেন মহিলা চিকিৎসক আমান্দা হেস। এর জন্য তাঁর সন্তান প্রসব পিছিয়ে গেল। আমান্দা যেভাবে নিজের বিপদের আশঙ্কার তোয়াক্কা না করে কর্তব্য পালন করেছেন, তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ সবাই।

সোশ্যাল নেটওয়ার্ক সাইটে এই ঘটনার কথা তুলে ধরেছেন অন্য এক চিকিৎসক হালা সাবরি। তিনি লিখেছেন, ‘চিকিৎসক মা এবং চিকিৎসক মায়েদের গোষ্ঠীর সদস্য আমান্দা হেসকে কুর্ণিশ জানাই। এই ছবিটা তাঁর দ্বিতীয় সন্তান এলিন জয়েসের জন্মের কিছুক্ষণ পরেই তোলা হয়েছে। ওকে শুধু সুন্দরী মডেলের মতোই দেখতে লাগছে না, ও নিজে যখন সন্তান প্রসবের জন্য রোগীর পোশাক পরছিল, তখনই শুনতে পায় নার্সরা বলছেন, তখনই অন্য এক মহিলার সন্তান জন্ম দেওয়া দরকার। গর্ভে থাকা সন্তানের অবস্থা ভাল নয়। ড. হেস জানতেন, সেই অবস্থায় ওই মহিলার সাহায্য দরকার। তাঁর নিজের কথায়, আমার পিঠ ঢাকার জন্য আর একটা গাউন আর জুতোর উপর একটি বুট পরে গিয়ে ওই মহিলার সন্তান প্রসবে সাহায্য করলাম। আক্ষরিক অর্থেই শেষমুহূর্তে ওই মহিলাকে সাহায্য করেন ড. হেস।’

সাবরি আরও লিখেছেন, চিকিৎসক মায়েরা সত্যিই জীবনের সঙ্গে বন্ধনে আবদ্ধ। এলিন ও তার দিদি কেট যখন বড় হবে, তখন তারা এই ঘটনার কথা জানতে পেরে আনন্দিত হবে। চিকিৎসক মায়েরা সবসময় নিজেদের পরিবারের লোকজনের পাশাপাশি রোগী ও তাঁদের পরিবারের লোকজনেরও খেয়াল রাখেন। ড. হেস মহান কর্তব্য পালন করেছেন। তিনি এখন মাতৃত্বকালীন ছুটি উপভোগ করছেন।

First Published: Wednesday, 2 August 2017 6:30 PM